পাকিস্তানের জাতীয় র্নিবাচনে ইমরান খানের মনোনয়নপত্র বাতিল

বাংলাপ্রেস ডেস্ক
১৯ জুন, ২০১৮

অনলাইন ডেস্ক: পাকিস্তানের জাতীয় র্নিবাচনে তেহরিক-ই-ইনসাফের (পিটিআই) প্রধান ইমরান খানের মনোনয়নপত্র বাতিল করেছে দেশটির র্নিবাচন কমিশন। পাকিস্তানে আসন্ন পার্লামেন্ট নির্বাচনের জন্য করাচির একটি আসনে প্রার্থী হিসেবে মনোনয়নপত্র দাখিল করেছিলেন ইমরান খান। আগামী ২৫ জুলাই পাকিস্তানের জাতীয় ও প্রাদেশিক নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। এই নির্বাচনে প্রার্থীদের মনোনয়নপত্র মঙ্গলবার যাচাই–বাছাই করে নির্বাচন কমিশন।

ইমরান খান ছাড়াও সাবেক প্রধানমন্ত্রী ও নওয়াজ শরিফের দল পাকিস্তান মুসলিম লিগের (পিএমএল-এন) নেতা শহীদ খাকান আব্বাসির মনোনয়নপত্র বাতিল করেছেন সংশ্লিষ্ট রিটার্নিং কর্মকর্তা। অসম্পূর্ণ হওয়ায় তাঁদের মনোনয়নপত্র বাতিল করা হয়েছে বলে জানানো হয়েছে।

আজ মঙ্গলবার পাকিস্তানের ডন অনলাইনে এ তথ্য জানানো হয়। ডনের প্রতিবেদনে বলা হয়, ইমরান খানসহ পাকিস্তানের শীর্ষ পর্যায়ের কয়েকজন নেতা ও দলের প্রধানদের মনোনয়নপত্র বাতিল হয়ে গেছে। এই তালিকায় ইমরান ও আব্বাসি ছাড়াও অল পাকিস্তান মুসলিম লিগের (এপিএমএল) প্রধান সাবেক সেনাশাসক পারভেজ মোশাররফ, মুত্তাহিদা কউমি মুভমেন্টের ফারুক সাত্তার, পিটিআইয়ের আয়েশা গুলালি ও পিএমএল-এনের সরদার মেহতাব খান আব্বাসি রয়েছেন। নানা কারণে তাঁদের মনোনয়নপত্র বাতিল করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন সংশ্লিষ্ট রিটার্নিং কর্মকর্তারা।

অবশ্য রিটার্নিং কর্মকর্তাদের সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে এই প্রার্থীরা আপিল ট্রাইব্যুনালে যাওয়ার সুযোগ পাবেন। ২২ জুন পর্যন্ত আপিল গ্রহণ করবে পাকিস্তানের নির্বাচন কমিশন। ২৭ জুনের মধ্যে এসব আবেদনের সুরাহা করবে কমিশন। পরদিন ২৮ জুন বৈধ প্রার্থীদের তালিকা প্রকাশ করা হবে। ২৯ জুন পর্যন্ত প্রার্থিতা প্রত্যাহার করতে পারবেন প্রার্থীরা। আর প্রার্থীদের চূড়ান্ত তালিকা প্রকাশিত হবে ৩০ জুন।

মঙ্গলবার অবশ্য পিপিপি চেয়ারম্যান বিলওয়াল ভুট্টো জারদারি, পিএমএল-এনের হামজা শাহবাজ ও মরিয়ম নওয়াজের মনোনয়নপত্র বৈধ ঘোষণা করেছেন নির্বাচন কমিশন।

বাংলাপ্রেস/এফএস