মামুনুল হকের বিরুদ্ধে ৩টি মামলা

বাংলাপ্রেস ডেস্ক
৭ এপ্রিল, ২০২১

বাংলাপ্রেস ডেস্ক: পুলিশের ওপর হামলা, ভাঙচুর এবং সরকারি কাজে বাধা দেয়ার অভিযোগে হেফাজতে ইসলামের কেন্দ্রীয় যুগ্ম মহাসচিব মামুনুল হকসহ ৮৩ জনের নাম উল্লেখ করে আরও তিনটি মামলা করা হয়েছে।

বুধবার (০৭ এপ্রিল) পুলিশ বাদী হয়ে দুটি মামলা করে এবং সাংবাদিক বাদী হয়ে একটি মামলা করে। এছাড়া মামলায় ৫০০ থেকে ৬০০ জনকে অজ্ঞাতনামা আসামিও করা হয়েছে।

গত শনিবার (৩ এপ্রিল) নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁওয়ে রয়াল রিসোর্টে মামুনুল হককে এক নারীসহ অবরুদ্ধ করে রাখেন স্থানীরা। পরে পুলিশ গিয়ে তাকে উদ্ধার করে। এ সময় হেফাজত কর্মীরা ওই রিসোর্টে হামলা এবং ভাঙচুর করে তাকে ছাড়িয়ে স্থানীয় একটি মসজিদে নিয়ে যান। মামুনুল হককে ছিনিয়ে নেয়ার সময় হেফাজতের উত্তেজিত কর্মী-সমর্থকরা লাঠিসোটা হাতে রিসোর্টে ভাঙচুর চালান। এরপর তারা ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করেন।

এ সময় হেফাজত কর্মীরা রাস্তায় আগুন জ্বালিয়ে সড়কে অবস্থান নেন এবং বেশ কয়েকটি গাড়ি ভাঙচুর করেন। পরে পুলিশ পরিস্থিতি শান্ত করতে টিয়ারশেল নিক্ষেপ করে ছত্রভঙ্গ করে দেয়।

স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তীতে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর বাংলাদেশ সফরের বিরোধীতা করে বিক্ষোভ কর্মসূচির ডাক দেয় হেফাজতে ইসলাম। পরবর্তীতে বিক্ষোভ কর্মসূচি রূপ নেয় সহিংসতায়। বিক্ষোভ ও আন্দোলন চলাকালে দেশব্যাপী তাণ্ডব চালায় হেফাজতের কর্মী ও সমর্থকরা। এসব ঘটনায় সারা দেশে মোট ২৫টি মামলা হয়েছে। সরকারের পক্ষ থেকে ওই ঘটনার জন্য হেফাজতকে দায়ী করা হলেও মামলাগুলোতে সংগঠনটির নেতাদের নাম দেয়া হয়নি।

তবে, গত ২৬ মার্চ জাতীয় মসজিদ বায়তুল মোকাররমে সহিংসতার ঘটনায় ৫ এপ্রিল হেফাজতের যুগ্ম মহাসচিব মামুনুল হকসহ ১৭ জনকে আসামি করে মামলা করা হয়েছে। ঢাকা মহানগর দক্ষিণ যুবলীগের উপ-দপ্তর সম্পাদক খন্দকার আরিফুজ্জামান বাদী হয়ে পল্টন থানায় মামলাটি করেন।