‘টিকা পাসপোর্ট’ চালুর চিন্তা করছে না যুক্তরাষ্ট্র

বাংলাপ্রেস ডেস্ক
৮ এপ্রিল, ২০২১

নিজস্ব প্রতিবেদক : এখনই ‘টিকা পাসপোর্ট’ চালু করবে না মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র। স্থানীয় সময় মঙ্গলবার (৬ এপ্রিল) হোয়াইট হাউস এ ধরনের প্রস্তাব বাতিল করে দিয়ে জানিয়েছে, মার্কিনীদের ব্যক্তিগত তথ্য ফাঁস হয়ে যেতে পারে এমন আশঙ্কায় সরকার এমন কোন সিদ্ধান্ত নেবে না। তবে বেসরকারি সংস্থাগুলি এই পরিকল্পনা খতিয়ে দেখতে পারে। নাগরিকদের গোপনীয়তা ও অধিকার রক্ষা করা উচিত বলে মন্তব্য করেছে হোয়াইট হাউজ কর্তৃপক্ষ।
এ বিষয়ে হোয়াইট হাউসের প্রেস সেক্রেটারি জেন সাকি বলেন, টিকা নেয়ার প্রমাণস্বরূপ কোনও নথি বহন করার পক্ষে মত দেয়নি সরকার। ভ্যাকসিন সংক্রান্ত কোনও ফেডারেল তথ্যভাণ্ডার তৈরি করা হয়নি। মার্কিন নাগরিকরা ব্যক্তিগত তথ্যের গোপনীয়তা, নিরাপত্তা ও বৈষম্য নিয়ে অত্যন্ত সংবেদনশীল। সরকার সেই কথা মাথায় রেখে বেসরকারি সংস্থাগুলির ক্ষেত্রে কিছু নির্দেশিকা প্রকাশ করবে।
তিনি আরও বলেন, কেন্দ্রীয় ভ্যাকসিনেশন ডাটাবেজ অথবা কেন্দ্রীয়ভাবে প্রত্যেকের জন্য কোনো ভ্যাকসিন নথি বহনের বাধ্যবাধ্যকতা থাকবে না। সরকার এখন অথবা ভবিষ্যতে এমন কোনো নিয়ম সমর্থন করবে না যেখানে আমেরিকানদের একটি সার্টিফিকেট বহন করতে হবে। কেন্দ্রীয় সরকারের পক্ষ থেকে আমাদের উদ্দেশ্য খুবই সাধারণ, আর তা হলো আমেরিকানদের গোপনীয়তা ও অধিকার রক্ষা করতে হবে, এজন্য অন্যায়ভাবে জনগণের ওপর এ ধরনের নিয়ম ব্যবহার করা হবে না।
‘টিকা পাসপোর্ট’ মূলত একটি ডিজিটাল হেলথ পাস। যা মিলবে বিশেষ কিছু অ্যাপের মাধ্যমে। করোনা সংক্রমণ ও টিকার সংক্রান্ত সকল খুঁটিনাটি থাকবে এই অ্যাপে। অর্থাৎ আপনি সংক্রমিত হয়েছেন কিনা, টিকা নেয়া আছে কিনা, টিকা নিলে কতদিন আগে তা নিয়েছেন। এরকম সকল তথ্যই থাকবে এই অ্যাপে। সেই তথ্য নিয়েই তৈরি করা হবে ‘টিকা পাসপোর্ট’।

বিপি।এসএম