রায়পুরে বিদ্যালয় ভবন নির্মাণে অনিয়মের অভিযোগ

বাংলাপ্রেস ডেস্ক
৯ মে, ২০২১

সুলতানা মাসুমা, লক্ষ্মীপুর থেকে: লক্ষ্মীপুর রায়পুর উপজেলার বামনী আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়ের ভবন নির্মাণে অনিয়মের অভিযোগ উঠেছে। স্থানীয়দের অভিযোগ কর্তৃপক্ষের তদারকির অভাবে ঠিকাদার প্রতিষ্ঠান অধিক মুনাফা লাভের আশায় নিম্নমানের নির্মাণ সামগ্রী দিয়ে স্কুল ভবনের নির্মাণ কাজ করে।ফলে উদ্বোধনের আগেই বিদ্যালয়টির দেয়ালের অংশ থেকে প্লাস্টার খসে পড়ে। জানা যায়,উপজেলার বামনী ইউনিয়নের খায়ের হাটে বামনী আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়ের ছাত্র-ছাত্রীর সংখ্যা বেশি হওয়ায় পুরাতন ভবনে পাঠদান করতে সমস্যা হওয়ায় দীর্ঘ দিন যাবত নানান সমস্যায় ভুগছিলেন শিক্ষার্থী ও শিক্ষকরা।বিষয়টি গুরুত্ব দিয়ে শিক্ষা প্রকৌশল অধিদপ্তরের ফ্যাসিলিটিজ বিভাগ ৪ তলা ভীত বিশিষ্ট ভবন নিমার্ণের দরপত্র আহ্বান করলে ই-জিপি টেন্ডারের মাধ্যমে উপজেলা প্রভাবশালী আওয়ামীলীগ নেতা বাবুল পাঠানের সহযোগী ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান মেসার্স এস,সার কনস্ট্রাকশন ২ কোটি ৫৯ লাখ ৪৯ হাজার ৩৮ টাকায় কাজটি পায়।যার সময়সীমা বেঁধে দেওয়া হয়েছিল ২০১৯ সালের ৩১ জানুয়ারি থেকে ১৮ মাস পর্যন্ত।নির্ধারিত সময় অতিক্রম হওয়ার পর কাজটি সম্পন্ন করতে না পারেনি ওই ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান।পরে বিল উত্তোলনের জন্যে তড়িঘড়ি করে নিমার্ণ কাজ সম্পন্ন করার চেষ্টা চালায় ওই ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান।কাজ সম্পন্ন করার জন্য নিম্নমানের নির্মাণ সামগ্রী ব্যবহারের ফলে বিদ্যালয় ভবনটির বেশ কয়েকটি জায়গায় ফাটলও ধরে।এমনকি বিদ্যালয়ের দেওয়াল থেকে প্লাস্টার খসে পড়ার ঘটনা ঘটে। সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, ভবনের সামনের অংশে বেশ কয়েকটি অংশে ফাটল ও প্লাস্টার খসে পড়ার চিহ্ন দেখা মিলে।ওই বিদ্যালয়ের নির্মাণাধীন স্থানে দেখা মেলে উপজেলা শিক্ষা প্রকৌশল অধিদপ্তরের উপ-সহকারী প্রকৌশলী মাহফুজুর রহমানের। এবিষয় তার নিকট জানতে চাইলে তিনি বলেন, ঠিকাদার রাসেল ভাইয়ের সাথে আমার কথা হয়েছে। কয়েকদিনের মধ্যে ধসে পড়া অংশটুকু মেরামত করে দিবে আশ্বাস দিয়েছে রাসেল ভাই। এ ব্যাপারে বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক হুমায়ুন কবীর জানান, বিদ্যালয় ভবন নিমার্ণের কাজের শুরু থেকে আজ পর্যন্ত এস্টিমেট ডিজাইন হাতে পায়নি।দেওয়াল খসে পড়ার ঘটনায় বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ ৩ হাজার টাকায় মুজুরী দিয়ে একজন শ্রমিক নিয়োগ দিয়ে টানা ৩ মাস যাবত পানি দিয়েছে। এবিষয়ে ঠিকাদার রাসেলের সাথে মুঠোফোনে কথা হলে তিনি জানান, উপেজলা আওয়ামীলীগ নেতা বাবুল পাঠান মিলে কাজটি করছেন।সিমেন্টের সাথে বালু বেশী দেওয়ায় দেওয়ালের প্লাস্টার খসে পড়ে।যেসব অংশে খসে পড়েছে সেগুলো মেরামত করে দেওয়া হয়েছে।

বিপি।এসএম