নোয়াখালীতে দুই ভূয়া স্বর্ণ প্রতারক আটক

বাংলাপ্রেস ডেস্ক
৫ সেপ্টেম্বর, ২০২১

সুলতানা মাসুমা, লক্ষ্মীপুরঃ নোয়াখালীর বেগমগঞ্জে স্বর্ণ প্রতারক চক্রের দুই সদস্যকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

আটককৃতরা হলেন, কবিরহাট উপজেলার ধানসিঁড়ি ইউনিয়নের ১নম্বর ওয়ার্ডের মনির আহমেদের ছেলে মো. মিজান (৩৮) ও একই উপজেলার কালিরহাট ইউনিয়নের ৬ নম্বর ওয়ার্ডের অমল চন্দ্র দের ছেলে সুমন চন্দ্র দেব (৩৮)।

রোববার (৫ সেপ্টেম্বর) দুপুরে গ্রেফতারকৃত আসামিদের নেয়াখালী চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে। এর আগে গতকাল শনিবার রাত দশটার দিকে বেগমগঞ্জের চৌমুহনী বাজারের মোরশেদ কমপ্লেক্সের সামনে একজনকে এবং অন্যজনকে কবিরহাট বাজার থেকে আটক করা হয়।

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, অভিযুক্ত মিজান বেগমগঞ্জের মিরওয়ারিশপুরের ফারহানা আক্তারের নিকট দুই ভরি আট আনা ওজনের একটি স্বর্ণের বিস্কুট বিক্রি করার আগ্রহ প্রকাশ করে ৯০হাজার টাকা মূল্য নির্ধারণ করে। ভুক্তভোগী ফারহানা ওই স্বর্ণের বিস্কুট কেনার জন্য নিজের এবং নিজের কন্যার কানের দুল, গলার হারসহ ৯২হাজার ৩শত টাকা সমমূল্যের স্বর্ণালঙ্কার ওই স্বর্ণের বিস্কুটের মূল্য বাবদ মিজানকে দেয়। পরবর্তীতে ভুক্তভোগী নারী ওই স্বর্ণের বিস্কুট নিয়ে একটি স্বর্ণের দোকানে গেলে জানতে পারে যে, স্বর্ণের বিস্কুটটি নকল। পুলিশ অভিযোগ পেয়ে প্রতারক মিজানের পরিচয় শনাক্ত করে। এরপর চৌমুহনী মোরশেদ কমপ্লেক্সের সামনে থেকে তাকে আটক করে। আটককৃত মিজানের স্বীকারোক্তি মতে তার অপর সহযোগী কবিরহাটের বকুল স্বর্ণ শিল্পালয়ের মালিক সুমন চন্দ্র দেব আটক করা হয় এবং তার দোকান হইতে ভুক্তভোগী ফারহানার স্বর্ণগুলো উদ্ধার করা হয়।
বেগমগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মুহাম্মদ কামরুজ্জামান শিকদার ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেন। তিনি আরও জানান, আটককৃত আসামিদের বিচারিক আদালতের সোপর্দ করা হয়েছে।

বিপি/আর এল