যুক্তরাষ্ট্রে সেরা মিথ্যাচারিতা জন্য অ্যালেক্স জোনসকে ৯৬৫ মিলিয়ন ডলার ক্ষতিপূরণ দিতে আদালতের নির্দেশ

বাংলাপ্রেস ডেস্ক
১৪ অক্টোবর, ২০২২

মিনারা হেলেন: যুক্তরাষ্ট্রের কানেকটিকাট অঙ্গরাজ্যের নিউটাউন শহরের স্যান্ডি হুক এলিমেন্টারি স্কুলে বন্দুকধারীর হামলার ঘটনাকে ‘ধোঁকাবাজি’ দাবি করায় মার্কিন ষড়যন্ত্র তাত্ত্বিক অ্যালেক্স জোনসকে ৯৬৫ মিলিয়ন ডলার ক্ষতিপূরণ দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন আদালত। ২০১২ সালের ১৪ ডিসেম্বর স্যান্ডি হুক এলিমেন্টারি স্কুলে বন্দুকধারীর গুলিতে ২০ শিশু ও ৬ প্রাপ্তবয়স্ক ব্যক্তি নিহত হন। স্থানীয় সময় বুধবার কানেকটিকাটের ওয়াটারবুরিতে (গোলাগুলির স্থান থেকে ২০ মাইল দূরে) এ রায় ঘোষণা করা হয়। নিহতদের পরিবারের অনেকেই এসময় চোখের পানি ধরে রাখতে পারেননি।
স্যান্ডি হুক এলিমেন্টারি স্কুলে বন্দুকধারীর হামলার ঘটনাটি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ইতিহাসে একটি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে সবচেয়ে মারাত্মক গণ গুলির ঘটনা এবং সামগ্রিকভাবে চতুর্থ-মরণঘাতী গণ গুলি। ২০ বছর বয়সী আততায়ী অ্যাডাম লানজা মানসিক রোগে ভোগার পূর্ব-ইতিহাস ছিল। কানেকটিকাটের নিউটাউনে ২০১২ সালের ১৪ ডিসেম্বর প্রথমে অ্যাডাম তার মাকে হত্যা করেন। তারপর স্যান্ডি হুক প্রাথমিক বিদ্যালয়ে হামলা চালান। ৬ থেকে ৭ বছর বয়সী ২০টি শিশু এবং ৬ জন প্রাপ্তবয়স্ক মানুষকে গুলি করে হত্যা করার পর অ্যাডাম লানজা আত্মহত্যা করেন। স্যান্ডি হুকের ভুক্তভোগীদের পরিবারের সদস্যরা বন্দুকের ব্যবহার নিয়ন্ত্রণের জন্য অসংখ্যবার প্রচারণা চালিয়েছেন, কিন্তু তাদের এই উদ্যোগগুলো ব্যর্থ হয়েছে।
এ ঘটনা নিয়ে ইন্টারনেটে কিছু মানুষ ছড়িয়ে দেয়, এই হত্যাকাণ্ডের ঘটনা সরকারের সাজানো। তারা দাবি করেন, গোলাগুলির ঘটনাটি মিথ্যা এবং এতে অভিনেতা-অভিনেত্রীদের ব্যবহার করা হয়েছে। এর উদ্দেশ্য, ‘গান লবি’ বা বন্দুকের ব্যবহারের স্বপক্ষে থাকা জনমতের অসম্মান করা।
জানা যায় ঘটনায় ক্ষতিগ্রস্ত আটজন এবং একজন এফবিআই এজেন্টের পরিবার কানেকটিকাট আদালতে মানহানি মামলায় অন্তত ৫৫০ মিলিয়ন ডলার ক্ষতিপূরণ দাবি করেছিলেন। ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারগুলোর অভিযোগ-ডানপন্থী রেডিও হোস্ট অ্যালেক্স জোনস গণমাধ্যমে ভুল তথ্য ছড়ানোয় এক দশক ধরে তারা খুনের হুমকি ও হেনস্থার শিকার হয়ে এসেছেন।
কিন্তু অ্যালেক্স জোনস বহু বছর ধরেই নিজের প্রতিষ্ঠিত ওয়েবসাইট ‘ইনফোয়ারস’ এবং টকশোর মাধ্যমে দাবি করে এসেছেন যে, আমেরিকানদের হাত থেকে বন্দুক ছিনিয়ে নেওয়ার জন্য সরকার স্যান্ডি হুক স্কুলের ঘটনাটি ‘মঞ্চায়িত’ করেছিল এবং এ ঘটনায় কেউ নিহত হয়নি। তিনি ঐ ঘটনায় নিহতদের মা-বাবাকে ‘আপদকালীন অভিনেতা’ বলে আখ্যা দেন এবং দাবি করেন, এদের কারো কারো আসলে অস্তিত্বই নেই। কিন্তু চলতি বছরের আগস্টে টেক্সাসে আলাদা একটি মানহানি মামলায় অ্যালেক্স জোনস মেনে নেন যে স্যান্ডি হুক স্কুলে বন্দুকধারীর ঘটনা ‘শতভাগ সত্য’ ছিল।
তিন সপ্তাহের শুনানিতে সাক্ষ্য দিয়েছেন নিহতদের পরিবারের সদস্যরা। কেউ কেউ জানিয়েছেন, জোনসের মিথ্যাচারের ফলে অনলাইনে বিদ্বেষের শিকার হয়েছেন তারা। আবার কেউ কেউ নিরাপত্তার খাতিরে নিজেদের বাসস্থান পাল্টাতে বাধ্য হয়েছেন। মার্ক বারডেন নামের এক বাবা জানা, তিনি মানুষকে তার ছেলের কবরের ওপর ‘মূত্রত্যাগ করা’ ও ‘কবর খোঁড়া’র হুমকি দিতে শুনেছেন।
জুরিরা আরও প্রমাণ পেয়েছেন যে জোনসের কোম্পানি ফ্রি স্পিচ সিস্টেম ইনফোয়ারস-এর ক্যাটালগের মাধ্যমে পুষ্টি সাপ্লিমেন্ট ও সারভাইভাল গিয়ার বিক্রি করে মিলিয়ন মিলিয়ন ডলার আয় করেছেন।
এদিকে অ্যালেক্স জোনস তার ভক্তদের কাছে অনুরোধ করেছেন জরুরি ভিত্তিতে তাকে অর্থ দিয়ে সাহায্য করার জন্য এবং প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন যে এই টাকা তার আইনি লড়াইয়ের কাজে ব্যয় হবে না, বরং তার প্রতিষ্ঠানকে শক্তিশালী করার পেছনে ব্যয় হবে।
তাছাড়া, আদালতের রায়ের বিরুদ্ধে তিনি আপিল করবেন বলেও জানিয়েছেন জোনসের আইনজীবী।

বিপি।এসএম