গাইবান্ধার নির্বাচন বন্ধ করা সঠিক ছিলো: সিইসি

বাংলাপ্রেস ডেস্ক
১৯ অক্টোবর, ২০২২

বাংলাপ্রেস,ঢাকা: আইন মেনে গাইবান্ধার উপনির্বাচন বন্ধ করা সঠিক ছিলো বলে দাবি করেছেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার সিইসি কাজী হাবিবুল আউয়াল।

বুধবার (১৯ অক্টোবর) রাজধানীর আগারগাঁওয়ে নির্বাচন ভবনে তিনি এ কথা বলেন তিনি। এদিন গাইবান্ধা-৫ আসনে উপনির্বাচন নিয়ে সাবেক প্রধান নির্বাচন কমিশনার, নির্বাচন কমিশনার ও সচিবদের সঙ্গে বৈঠকে বসেন বর্তমান সিইসি কাজী হাবিবুল আউয়ালের নেতৃত্বাধীন কমিশন।

বৈঠকে সাবেক তিন সিইসি আব্দুর রউফ, কে এম নূরুল হুদা, কাজী রকিব উদ্দীন আহমদ এবং তিন কমিশনার এম সাখাওয়াত হোসেন, রফিকুল ইসলাম, কবিতা খানমসহ ১৩ জন অংশ নেন।

বৈঠকে অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, সাবেক ইসি সচিব মোহাম্মদ সাদিক, মোহাম্মদ আবদুল্লাহ, সিরাজুল ইসলাম, হেলাল উদ্দীন আহমেদ এবং ইসির সাবেক অতিরিক্ত সচিব জেসমিন টুলী ও মোখলেছুর রহমান।

বৈঠক শেষে সাবেক নির্বাচন কমিশনার ব্রিগেডিয়ার জেনারেল (অব:) এম সাখাওয়াত হোসেন বলেছেন, ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনে (ইভিএম) কারচুপি সম্ভব। আর ব্যালটে যেটা সম্ভব নয়। কারণ কেন্দ্র দখল করতে গেলে হইচই হয়। সিসি ক্যামেরা নিয়েও বিতর্ক আছে। সেটা ভালো হোক, মন্দ হোক।

তিনি বলেন, ইভিএম যেখানে ব্যবহার হচ্ছে, ব্যবহার করুন। ব্যালট পেপার নিয়ে গেলেও সেটা ফাইন্ড আউট করা সম্ভব। কিন্তু ইভিএমে সূক্ষ্ম কারচুপি সম্ভব। বাইরে কোনো হইচই নাই, কিছু নাই, অথচ ভেতরে কী হচ্ছে, গাইবান্ধায় যেটা আমরা দেখলাম। অন্য সিস্টেমে হলে (ব্যালট পেপারে কারচুপি) বাইরেও হইচই হতো। সেটা আরও ভালো করে দেখতে পারতেন। কারণ কেন্দ্র ক্যাপচার করতে তো লোকবল লাগবে।

বিপি> আর এল