বোস্টনে ‘ডুয়ানি’র কলুষিত ভোটার তালিকা বাতিল করে সুষ্ঠ কমিটি গঠন প্রক্রিয়া শুরু

বাংলাপ্রেস ডেস্ক
১৩ নভেম্বর, ২০২২
নিউ ইংল্যান্ডের ইতিহাসে প্রথম ঢাবি অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশন (ডুয়ানি)’র কমিটি গঠন করা হয় ২০১৩ সালে। ছবি: বাংলা প্রেস

ছাবেদ সাথী: যুক্তরাষ্ট্রের ম্যাসাচুসেটস অঙ্গরাজ্যের বোস্টনে ঐতিহ্যবাহী ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশন অব নিউইংল্যান্ড (ডুয়ানি)’র কমিটি গঠনে নানা অনিয়ম, স্বেচ্ছাচারিতা ও ক্ষমতা অপব্যবহারের অভিযোগ উঠেছে। পক্ষপাতিত্ব ও ভূয়া ভোটার তালিকা তৈরির মাধ্যমে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক ছাত্র সংসদ ডুয়ানি’কে নিজেদের নিয়ন্ত্রণে রাখার আপ্রাণ চেষ্টা চালাচ্ছেন একটি স্বার্থন্বেষী মহল। এ নিয়ে বোস্টন প্রবাসী বাংলাদেশিদের মাঝে বইছে নানা গুঞ্জন।
ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশন অব নিউইংল্যান্ড (ডুয়ানি)’র কমিটি পুনর্গঠনের লক্ষ্যে আগামী রবিবার (২০ নভেম্বর) বিকাল ৫ টায় জুম মিটিংয়ে অংশ গ্রহণের আহবান জানিয়েছেন সংগঠনের সাবেক সভাপতি মনির সাজি ও সাইমন সাবির। ডা. আব্দুল হাকিম তার কমিটিকে বিনা বেতনে (স্বেচ্ছাসেবক) হিসেবে সংগঠনের পেছেন সময় দেবার জন্য তাদেরকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন।
ডা. হাকিম মামলা করেছিল মনির সাজি ও সাইমন সাবিরদের হয়রানি করার জন্য। সাইমন সাবিরও পাল্টা মামলা করেছিলেন তার হয়রানির বিচার করার জন্য। আদালত কোন কারণে মোকদ্দমাটি বাতিল করে দেন। তবে বিষয়টি সংশোধন করে আবারো নতুন মামলা করার পথ খোলা রেখেছেন। একই সাথে আবার নির্দেশনা দিয়েছেন সংবিধান অনুযায়ী আরবিট্রেশন কমিটির মাধ্যমে মতভেদ নিস্পত্তি করার জন্য। যেহেতু সাবেক সভাপতি হাকিম কোনো আরবিট্রেশন কমিটি গঠনের চেষ্টাও করেন নাই। তাই অবশিষ্ট সদস্যরা সংগঠনকে পুনর্গঠনের চেষ্টা চলাচ্ছেন বলে তারা উল্লেখ করেন।
তারা জানান, সংগঠনকে পুনর্গঠন ব্যতিত আর কোনো পথ খোলা নেই, কারণ সংগঠনের সক্রিয় সদস্যরা কেহই দূর্নীতি বা কলুষিত প্রক্রিয়ায় ব্যবস্থাপনা চান না। ডা. হাকিমের কলুষিত ভোটার তালিকা ছিল ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশন অব নিউইংল্যান্ড (ডুয়ানি)’কে ধ্বংসের মূল লক্ষ্য। তাই সবাইকে নিয়ে নতুন ভোটার তালিকা তৈরি করে একটি সার্বজনীন ও নিরপেক্ষ কমিটি গঠনের দাবি জানান। যেখানে সদস্যদের ফি হবে ঐচ্ছিক এবং সংগঠন চলবে অনুদানের টাকায়।
জানা যায়, ডুয়ানি’র কমিটি গঠনে নানা অনিয়ম, স্বেচ্ছাচারিতা ও ক্ষমতা অপব্যবহারের বিষয়টি আদালত পর্যন্ত গড়িয়েছে। সাবেক সভাপতি ডা. আব্দুল হাকিম আদালতে দায়ের করা মামলায় জিতেছেন বলে দুইবার ভূয়া দাবি তোলেন। অথচ আদালত কখনো কোনো রায় (ভার্ডিক্ট) দেয়নি। তিনি দীর্ঘ এক বছর ধরে কমিটির নানা বিষয় গোপন রেখেও তাতে সফল হননি। সামনা সামনি আলোচনায় বসে কোনো প্রকার সদুত্তরও দিতে পারেননি সাধারন সদস্যদের।
ভোটার তালিকা তৈরিতে ডা. আব্দুল হাকিম চরম অনিয়ম ও স্বেচ্ছাচারিতা করেছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। তিনি মনগড়া ভাবে নিজের পছন্দের লোকদের ভোটার তালিকায় অন্তর্ভুক্তি করেছেন বলে অভিযোগ উঠেছে। অপরদিকে সাইমন সাবিরের পাঠানো আবেদনকারীদের নানা প্রশ্নবাণে জর্জরিত করেন। তাতেও ফল না হলে শেষে ৫৮ জন আবেদনকারীকে অযোগ্য বলে তালিকাভুক্ত করেন।
অভিযোগে বলা হয়, গত ২০২১ সালের ১৫ নভেম্বর নির্ধারিত সময়ে পরও তিনি অত্যন্ত সুকৌশলে নতুন ভোটার তালিকাভূক্ত করেছেন, যা সংগঠনের সংবিধান পরিপন্থী। তার এ চক্রান্ত পরে সাধারন সদস্যদের মাঝে প্রকাশ পাওয়ার পরও ডিসেম্বর পর্যন্ত তিনি ভোটার তালিকা চূড়ান্ত করতে ব্যর্থ হন। তাই আগামী আগামী রবিবার (২০ নভেম্বর) বিকাল ৫ টায় জুম মিটিংয়ে অংশ গ্রহণ করে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশন অব নিউইংল্যান্ড (ডুয়ানি)’র নির্বাচন বা কমিটি গঠনের জটিলতা নিরসনে চূড়ান্ত ব্যাখ্যা দেওয়ার দাবি জানিয়েছেন সাধারন সদস্যবৃন্দ।
উল্লেখ্য, ২০১১ সালে বোস্টনে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কিছু সংখ্যক সাবেক ছাত্রের সমন্বয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশন অব নিউইংল্যান্ড (ডুয়ানি) নামে এ সংগঠনটির কমিটি গঠন করা হয়।

 

বিপি।এসএম