জিয়ার খেতাব বাতিলে মুক্তিযোদ্ধা কাউন্সিলের সিদ্ধান্ত চূড়ান্ত

বাংলাপ্রেস ডেস্ক
১৪ মার্চ, ২০২১

বাংলাপ্রেস ডেস্কঃ জিয়াউর রহমানসহ বঙ্গবন্ধুর আত্মস্বীকৃত চার খুনির মুক্তিযোদ্ধা খেতাব বাতিলের সিদ্ধান্ত চূড়ান্ত করেছে জাতীয় মুক্তিযোদ্ধা কাউন্সিল। একই সাথে খন্দকার মোশতাকের পরিবারের রাষ্ট্রীয় সুবিধাদি তুলে নেয়ারও নীতিগত সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। এ বিষয়ে সরকারের কাছে প্রস্তাব পাঠাতে গঠন করা হয়েছে তিন সদস্যের কমিটি। কাউন্সিল সদস্য শাজাহান খান  জানান, প্রক্রিয়াটি শেষ করার দায়িত্ব সরকারের।

মুক্তিযুদ্ধে বীরত্বপূর্ণ অবদানের জন্য রাষ্ট্রঘোষিত ৪ খেতাবের দ্বিতীয়টি বীরউত্তম। জাতীয় মুক্তিযোদ্ধা কাউন্সিল এবং মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের ওয়েবসাইটে ৬৮ বীর উত্তমের তালিকায় তৃতীয় ব্যক্তি মুক্তিযুদ্ধের ১ নাম্বার সেক্টর কমান্ডার মেজর জিয়াউর রহমান। পরবর্তীতে যার হাত ধরে প্রতিষ্ঠা পায় বিএনপি। আর তালিকার ১৯ নাম্বারে মেজর শরীফুল হক ডালিম, যিনি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আত্মস্বীকৃত খুনী।

চলতি বছরের ৯ ফেব্রুয়ারি জাতীয় মুক্তিযোদ্ধা কাউন্সিলের সভায় বঙ্গবন্ধুর আত্মস্বীকৃত চার খুনিসহ জিয়াউর রহমানের মুক্তিযুদ্ধের খেতাব বাতিলের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। রোববার সকালে পুনরায় বৈঠকে বসে জামুকা। বৈঠক শেষে, আগের সিদ্ধান্তে অটল থাকার কথা জানায় কাউন্সিল। জাতীয় মুক্তিযোদ্ধা কাউন্সিলের সদস্য শাজাহান খান জানান, খেতাব বাতিলের আইনি ও সাংবিধানিক কাজটি করবে সরকার। এই নিয়ে সরকারের কাছে পূর্ণাঙ্গ প্রতিবেদন দিতে গঠন করা হয়েছে কমিটি। পুরো প্রক্রিয়া শেষ করা সময়সাপেক্ষ বলেও জানান শাজাহান খান।

বিপি/আরএল