বিশ্বকাপে ব্যবহার করা হচ্ছে প্লাস্টিকের বল, অসন্তোষের শেষ নেই গোলরক্ষকদের

বাংলাপ্রেস ডেস্ক
২১ জুন, ২০১৮

অনলাইন ডেস্ক: এবারের রাশিয়া বিশ্বকাপে প্লাস্টিকের বলে খেলা হচ্ছে। বিশ্বকাপ যে বলে খেলা হচ্ছে তার নাম ‘টেলস্টার’। ১৯৭০ বিশ্বকাপে প্রথম টেলস্টার নামের বলে খেলা হয়েছিল। তবে সাদা-কালো এই বল নিয়ে গোলকিপারদের মধ্যে অসন্তোষের শেষ নেই। আসলে টেলস্টার বলটার উপরের অংশ প্লাস্টিকের ফিল্মে মোড়া। ফলে বল তালুবন্দি করতে প্রচণ্ড অসুবিধায় পড়তে হচ্ছে গোলকিপারদের।

স্পেনের গোলকিপার ডেভিড দে গিয়া বলছিলেন, বলের কোয়ালিটি আরেকটু ভালো হতে পারত। এটা বিশ্বকাপ বলে কথা। বলটা গ্রিপ করতে প্রচণ্ড অসুবিধা হচ্ছে। দূরপাল্লার শটে গোল এবার বেশি দেখা যাবে। এই বল নিয়ে দীর্ঘদিন প্র্যাকটিস করেও লাভ হবে না। কারণ, বলের উপরে প্লাস্টিকের আচ্ছাদন থাকায় সেটা গ্রিপ করা সোজা নয়। একই কথা বলছিলেন জার্মানির গোলকিপার তের স্তেগেন। তার কথায়, বলটা প্রচণ্ড সুইং করছে। বেশি সমস্যা হচ্ছে বল গ্রিপ করতে।

টেলস্টার তৈরিতে অবশ্য প্রস্তুতকারক সংস্থা কোনও চেষ্টার ক্রুটি রাখেনি। স্টিলের দেওয়ালে দু’হাজার বার এই বল দিয়ে শট করে দেখা হয়েছে। ৫০ কিলোমিটার প্রতি ঘণ্টা বেগে শট করেও দেখা গেছে বলের অবস্থার কোনও পরিবর্তন হয়নি।

এর আগে ৩২ প্যানেলের বল দেখা যেত। কিন্তু এবার টেলস্টার বলে ছয়টা প্যানেল রয়েছে। যাতে শিশিরের জন্য বল নিয়ন্ত্রণে ফুটবলারদের অসুবিধা না হয়। ব্রাজিল বিশ্বকাপে ব্যবহৃত ব্রাজুকা বলেও ছটা প্যানেল ছিল।

বাংলাপ্রেস/এফএস