ঘোড়াঘাট নির্বাহী কর্মকর্তাকে হত্যা চেষ্টায় রবিউলের ১০ বছরের কারাদণ্ড

বাংলাপ্রেস ডেস্ক
৮ নভেম্বর, ২০২২

বাংলাপ্রেস ডেস্ক: দিনাজপুরের ঘোড়াঘাট উপজেলার সাবেক নির্বাহী কর্মকর্তা ওয়াহিদা খানম ও তার বাবা ওমর আলী শেখকে হত্যাচেষ্টার চাঞ্চল্যকর মামলায় আসামি রবিউল ইসলামকে ১০ বছরের সশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। মঙ্গলবার সকালে দিনাজপুরের অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক সাদিয়া সুলতানা এ রায় ঘোষণা করেন।
রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী অ্যাডভোকেট রবিউল ইসলাম বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, দুটি পৃথক ধারায় তাকে ১০ বছর ও তিন বছরের সশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। তবে তাকে ১০ বছরের কারাদণ্ড ভোগ করতে হবে। এ ছাড়া ১০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে এবং অনাদায়ে আরও ছয় মাসের জেলে থাকতে হবে। রায় ঘোষণার সময় আসামি রবিউল ইসলাম আদালতে উপস্থিত ছিলেন।
উল্লেখ্য, ২০২০ সালের ২ সেপ্টেম্বর দিবাগত রাত ২টার দিকে ইউএনওর সরকারি বাসভবনে ঢুকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে ওয়াহিদা এবং তার বাবাকে কুপিয়ে গুরুতর আহত করা হয়। ৩ সেপ্টেম্বর ওয়াহিদার ভাই শেখ ফরিদ বাদী হয়ে ঘোড়াঘাট থানায় একটি মামলা করেন। ২০২০ সালের ১১ সেপ্টেম্বর ওই বাসভবনের কর্মচারী রবিউল ইসলামসহ কয়েকজনকে আটক করা হয়। টাকা চুরির অপরাধে ইউএনও অফিসের কর্মচারী রবিউলকে চাকরিচ্যুত করায় ক্ষোভ থেকে ইউএনওর ওপর হামলার ঘটনা ঘটিয়েছে বলে পুলিশের তদন্তে উঠে আসে।

বিপি।এসএম